Principal's Information

Principal

প্রফেসর মো. সালেহ আহমদ

অধ্যক্ষ, (অধ্যাপক, মনোবিজ্ঞান)

বিএসসি (অনার্স), এমএসসি (মনোবিজ্ঞান), ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, এমবিএ (১ম শ্রেণি ১ম স্থান)

Joining Date: 31-12-2019

অধ্যক্ষের সংক্ষিপ্ত পরিচিতি

প্রফেসর মো. সালেহ আহমদ

অধ্যক্ষ, মুরারিচাঁদ কলেজ, সিলেট

 

প্রফেসর মো. সালেহ আহমদ-এর জন্ম ১৯৬৩ সালে সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলাধীন ঐতিহ্যবাহী সৈয়দপুর গ্রামে। তাঁর পিতা বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ মরহুম মাওলানা আব্দুর রউফ এবং মাতা সৈয়দা শফিয়া খাতুন। তিনি প্রায় ২৭ বছর ধরে বিভিন্ন সরকারি কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চ শিক্ষা পর্যায়ে শিক্ষকতার মহান পেশায় নিজেকে সুপ্রতিষ্ঠিত করেছেন দক্ষ ও মননশীল উপায়ে। প্রফেসর মো. সালেহ আহমদ আত্মপ্রত্যয়ে ঋদ্ধ একজন প্রতিশ্রুতিশীল ও মনস্বী শিক্ষাবিদ। ব্যক্তিত্ব এবং অধীত বিষয়কে সৃজনশীল ও আকর্ষণীয় করে জ্ঞান-গভীর ভাষণের জন্যে শিক্ষার্থীদের কাছে তিনি পরিচিত একজন সম্মোহনী (Hypnotic)  শিক্ষক হিসেবে।

 

শিক্ষা:

এস.এস.সি.

-

১ম বিভাগ (৩ বিষয়ে লেটার মার্কস ও স্কলারশিপপ্রাপ্ত), ১৯৭৮, সৈয়দপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, সুনামগঞ্জ;

এইচ.এস.সি.

-

উচ্চতর ২য় বিভাগ, ১৯৮০, মুরারিচাঁদ কলেজ, সিলেট;

বি.এসসি (অনার্স)

-

উচ্চতর ২য় শ্রেণি, ১৯৮৪, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা;

এম.এসসি

-

উচ্চতর ২য় শ্রেণি, ১৯৮৫, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা;

ডিপ্লোমা-ইন্-ইংলিশ

-

১ম বিভাগ, ১৯৮৭, আধুনিক ভাষা ইন্স্টিটিউট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়;

পিজিডি-এইচআরএম

-

১ম শ্রেণিতে ১ম স্থান, ১৯৮৮,ইন্স্টিটিউট অব্ পারসোনেল ম্যানেজমেন্ট বাংলাদেশ, ঢাকা;

এমবিএ

-

১ম শ্রেণিতে ১ম স্থান, ২০১২ মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি, সিলেট;

 

 

কর্মজীবন:

 

প্রফেসর মো. সালেহ আহমদ ঢাকায় ইন্স্টিটিউট অব্ পারসোনেল ম্যানেজমেন্ট বাংলাদেশ এর প্রভাষক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন ১৯৮৯ সালে। ব্যাংকার হিসেবে পূবালী ব্যাংক লিমিটেড-এ (কাওরান বাজার শাখা, ঢাকা) কয়েক মাস কাজ করে, তিনি ১৯৯০ সালে আন্তর্জাতিক এনজিও কেয়ার (CARE)-  এর যশোর সাব-অফিসে যোগদান করেন; সেখানে তিনি ছিলেন প্রজেক্ট ইন্ চার্জ । ১৯৯২ সালে ‘ইন্স্টিটিউট অব্ ইন্টিগ্রেটেড রুরাল ডেভেলপমেন্ট’ (IIRD) -এর প্রজেক্ট ম্যানেজার হিসেবে বগুড়া প্রজেক্ট-এ যোগ দেন। ছয় মাস পর পদোন্নতি পেয়ে তিনি IIRD-  এর হেড অফিস ঢাকায় পল্লী বিকাশ কেন্দ্রের দায়িত্ব পালন করেন ম্যানেজার (এড্মিনিস্ট্রেশন) হিসেবে ।

এছাড়া, ১৯৯১ সালে কেয়ার (CARE) থেকে সাইক্লোন রিলিফ অপারেশন-এর টিম লিডার হিসেবে ভোলা জেলার চরফ্যাশন-এ Disaster Management এ কাজ করেন। প্রফেসর আহমদ তাই বহুমাত্রিক অভিজ্ঞতায় সমৃদ্ধ একজন পেশাজীবী। তিনি চতুর্দশ বিসিএস পরীক্ষায় কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হয়ে ১৯৯৩ সালে যোগদান করেন সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারে।

 

সরকারি চাকরি:

গফরগাঁও সরকারি কলেজ, ময়মনসিংহ, প্রভাষক (মনোবিজ্ঞান) পদে যোগদান করেন ১৯৯৩ সালে। প্রভাষক (মনোবিজ্ঞান), এম.সি.কলেজ, সিলেট, ১৯৯৪-২০০১; সহকারী অধ্যাপক (মনোবিজ্ঞান), রাজশাহী সরকারি সিটি কলেজ, রাজশাহী,২০০১; সহকারী অধ্যাপক (মনোবিজ্ঞান), এম.সি.কলেজ, সিলেট, ২০০১-২০০৬; সহযোগী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান (মনোবিজ্ঞান), এম.সি.কলেজ, সিলেট, ২ আগস্ট, ২০০৬ - ১৮ আগস্ট, ২০১৭ খ্রি.

 

প্রফেসর মো. সালেহ আহমদ প্রফেসর হিসেবে পদোন্নতি পেয়ে ২০১৭ সালের ২০ আগস্ট প্রথমে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরে ঢাকায় যোগদান করেন। ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭ সালে তিনি যোগদান করেন সরকারি আজিজুল হক কলেজ বগুড়ায় মনোবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান হিসেবে । প্রফেসর আহমদ বদলী হয়ে ২০১৭ সালের ২১ অক্টোবর থেকে ৫  এপ্রিল, ২০১৮ পর্যন্ত প্রায় ছয় মাস দায়িত্ব পালন করেন সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজে উপাধ্যক্ষ পদে । অতঃপর তিনি ২০১৮ সালের ৭ এপ্রিল থেকে ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৯ পর্যন্ত ঐতিহ্যবাহী মুরারিচাঁদ কলেজের উপাধ্যক্ষ পদে নিয়োজিত ছিলেন। প্রথিতযশা নন্দিত এই শিক্ষাবিদ ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯ মুরারিচাদ কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন।

 

পেশা সংশ্লিষ্ট অন্যান্য সম্পৃক্ততা:

প্লাটুন কমান্ডার, বিএনসিসি, এম.সি.কলেজ প্লাটুন, ১৯৯৬-২০০৬;  তত্ত্বাবধায়ক, ৩য় ব্লক-এম.সি.কলেজ ছাত্রাবাস,২০০০-২০১০; সাধারণ সম্পাদক, বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতি, এম.সি.কলেজ ইউনিট,১৯৯৯-২০০১; জেলা সম্পাদক, বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতি, সিলেট জেলা,২০০৩-২০০৫; যুগ্ম মহাসচিব, বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতি, কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটি, ২০০৭-২০০৮; জেলা সভাপতি, বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতি, সিলেট জেলা, ২০১১-২০১৩; চিফ্ ইন্ভিজিলেটর, বৃটিশ কাউন্সিল, সিলেট,২০০৪ থেকে ২০১৭; কার্যকরী সদস্য, বাংলাদেশ মনোবিজ্ঞান সমিতি,২০১২-২০১৬। তিনি সিলেট এম.এ.জি.ওসমানী মেডিকেল কলেজে এম.ফিল কোর্সে এবং বিভিন্ন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে গেস্ট ফ্যাকাল্টি হিসেবে আন্ডার গ্র্যাজুয়েট ও পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্সে অধ্যাপনা করেছেন ২০০৩ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত। শিক্ষাদানের ক্ষেত্রে তাঁর পছন্দের বিষয়সমূহ হচ্ছে - শিল্প মনোবিজ্ঞান, পরিসংখ্যান, সাংগঠনিক আচরণ, ইন্ডাস্ট্রিয়াল ম্যানেজমেন্ট, হিউম্যান রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট, হিউম্যান রিসোর্স প্ল্যানিং এন্ড স্টাফিং, পজেটিভ সাইকোলজি ও ইংলিশ ল্যাংগুয়েজ।

প্রফেসর মো. সালেহ আহমদ রোটারিসহ অসংখ্য সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও সাহিত্য সংগঠনের সাথে সক্রিয়ভাবে সম্পৃক্ত। তিনি রোটারি ক্লাব অব্ সিলেট মহানগর-এর চার্টার প্রেসিডেন্ট এবং রোটারি আন্তর্জাতিক জেলা-৩২৮২ এর সুরমা জোনের প্রাক্তন এসিস্ট্যান্ট গভর্নর ছিলেন। তিনি ২০২০-২০২১ সালের সুরমা জোনের ডেপুটি  গভর্নর। এছাড়া, তিনি সিলেটস্থ জগন্নাথপুর উপজেলা সমিতির প্রাক্তন সভাপতি এবং গ্রেটার সিলেট ডেভেলপ্মেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল ইউকে, সিলেট চাপ্টারের বর্তমান সভাপতি।

 

বিশেষ কৃতিত্ব ও অর্জন :

শ্রেষ্ঠ ক্যাম্পার, ইন্টারন্যাশনাল ‘রোটারি ইয়ুথ লিডারশিপ এওয়ার্ড’ (RYLA)  ক্যাম্প, ১৯৮৮; শ্রেষ্ঠ বক্তা, ইংরেজি বিতর্ক, ১৯৯৬, জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমি (NAEM) -শিক্ষা মন্ত্রণালয়, ঢাকা; শ্রেষ্ঠ শিক্ষক সম্মাননা পদক (কলেজ পর্যায়ে), ২০১২ ‘Say Foundation’ সুনামগঞ্জ।

 

 

 

Content Will be Added